Saturday, 3 March 2012

Sex Education--only for adult যৌন শিক্ষা


 বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত দেশে যৌন শিক্ষার ব্যবস্থা থাকলেও এখনো বাংলা দেশের কোনো বিদ্যালয়ে এমন কোনো শিক্ষার ব্যবস্থা নেই । যদিও দাম্পত্ব জীবনের জন্য প্রতিটি মানুষের যৌন ভিত্তিক জ্ঞান থাকা অত্যাবশ্যক । সৃষ্টি কর্তা সব জিনিষই পরিকল্পনা ভিত্তিক সৃষ্টি করেছে সেই পরিকল্পনাকে অনুসরন করে চললে অবশ্যই মানুষ অনেক বেশি সুখী জীবন যাপন করতে পারবে । সৃষ্টি কর্তার নিয়মানুযায়ী সহবাস করলে অনেক বেশি আনন্দ পাওয়া যায় ।

পুরুষ লিঙ্গের স্পর্শকাতর জায়গা নিচের ছবিতে দেখুন

মেয়েদের অঙ্গ যখন উত্তেজিত হয় তখন স্পর্শকাতর জায়গাটি ফুলে ওঠে এবং শক্ত হয় । নিচের ছবিতে স্পর্শকাতর জায়গাটি দেখুন

পুরুষের স্পর্শকাতর জায়গাটিতে চাপ পড়লে বেশি আনন্দ অনুভুত হয় তাই নারীর শক্ত দিকটার সাথে যদি পুরুষের লিঙ্গের স্পর্শকাতর জায়গাটির ঘর্সন হয় তাহলে উভয়ে এক সঙ্গে আনন্দ লাভ করতে পারে, আর এটাই সৃষ্টিকর্তার নিয়ম । নিচের ছবিটিতে দেখুন

সঙ্গম করার আগে একে অপরকে পুরোপুরি প্রস্তুত করে নেওয়া খুবই জরুরি । পুরুষকে প্রস্তুত করার সব চেয়ে উত্তম পদ্ধতি হলো পুরুষের লিঙ্গ চোষা । পুরুষের যদি যৌন মিলনের ইচ্ছা নাও থাকে আর নারী যদি তার লিঙ্গটি চুষতে শুরু করে তাহলে দ্রুত পুরুষে মধ্যে যৌন মিলনের আকাঙ্খা জন্ম নেয় ।


নারীকে ১০০% উত্তেজিত করেই সঙ্গম করা উচিৎ । নারী উত্তেজিত না হলে তার যোনির স্পর্শকাতর জায়গাটি শক্ত হবে না এবং ফুলবে না । নারীর সামনের দিকের ভেতরের অংশটা ফুলে শক্ত হলেই দু'জনেই পুরোপুরি আনন্দ পাবে । যেহেতু বাংলাদেশী অধিকাংশ পুরুষ নারীর যোনি চুষতে চান না তাই নারীকে উত্তেজিত করতে অন্য উপায় অবলম্বন করা যেতে পারে যেমন নারীর স্তন বা বিভিন্ন স্পর্শকাতর জায়গা চোষা বা মর্দন করা, এবং যোনিতে আঙুল বা লিঙ্গ ঘর্সন করেও নারীকে উত্তেজিত করা যেতে পারে ।

অত্যন্ত তৃপ্তিকর কিছু আসন 


নিচের আসনটি কম তৃপ্তিকর
                                                    হস্তমৈথুনরত নারী